বিষাক্ত সাপের কামড়েও ঘোড়ার মৃত্যু হয় না কেন?

Read Time:1 Minute, 48 Second

বিষাক্ত সাপের ছোবলে হাতি সহ বেশীর ভাগ প্রাণীরা মারা গেলেও কয়েকটি মাত্র প্রাণী আছে যারা সাপের বিষ হজম করতে পারে,এদের তেমন কিছুই হয় না। এমন একটি প্রাণী হল ঘোড়া। সাপের কামরে ঘোড়া মরে না। কামরের ৩ দিন অসুস্থ থাকে, ৩দিন পর সুস্থ হয়ে যায়। পৃথিবীতে বেশীর ভাগ সাপের বিষের এনটি ভেনম প্রতিষেধক তৈরি হয় ঘোড়া থেকে। এছাড়াও বেজি, উট, হাঙ্গর থেকে সাপের বিষ প্রতিরোধের প্রতিষেধক তৈরি করা হয়।

গবেষকেরা কিভাবে anti ভেনম তৈরি করে, প্রথমে প্রচুর পরিমানে সাপের বিষ ঘোড়ার শরীরলে ঢুকানো হয়। যতই বিষ ঘোড়ার শরীরলে ঢুকানো হউক না কেন ঘোড়ার কিছুই হবে না। মাত্র ৩ দিন অসুস্থ থাকবে। বিষ ঢুকানোর পর ঘোড়ার শরীরলে এন্টি ভেনম তৈরি হয়। পরে ঘোড়ার শরীর থেকে রক্ত সংগ্রহ করা হয়। ৬ লিটার পর্যন্ত রক্ত ঘোড়ার শরীর থেকে নেয়া যায়। তাতে ঘোড়ার মরবে না, কিছু দিন দুর্বল থাকবে। কারন ঘোড়ার শরীরলে প্রচুর রক্ত থাকে। রক্ত সংগ্রহ করার পর লাল অংশ আলাদা করা হয় এবং সাদা অংশ থেকে এন্টি ভেনম আলাদা করা হয়। তারপর এই এন্টি ভেনম শুদ্ধি করন প্রক্রিয়া সম্পূর্ণ করে বাজারজাত করা হয়।

1 0
Happy
Happy
0
Sad
Sad
0
Excited
Excited
0
Sleppy
Sleppy
0
Angry
Angry
0
Surprise
Surprise
0

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Next Post

কিভাবে সাপের বিষ তৈরি হয়?

বিষাক্ত সাপের ছোবলে হাতি সহ বেশীর ভাগ প্রাণীরা মারা গেলেও কয়েকটি মাত্র প্রাণী আছে যারা সাপের বিষ হজম করতে পারে,এদের তেমন কিছুই হয় না। এমন একটি প্রাণী হল ঘোড়া। সাপের কামরে ঘোড়া মরে না। কামরের ৩ দিন অসুস্থ থাকে, ৩দিন পর সুস্থ হয়ে যায়। পৃথিবীতে বেশীর ভাগ সাপের বিষের এনটি […]
sanke anti venom-mytv bangla